শীতের চার পিঠা

শীত তো চলেই এলো। এখন পিঠা খাওয়ার মৌসুম। বাংলাদেশের আবহাওয়ায় এমনসব ফল এবং শস্য পাওয়া যায় যা পিঠা তৈরিতে বিশেষ ভূমিকা রাখতে পারে।

দুধ চিতই

উপকরণ :

  • আতপ চালের গুঁড়া ৩ কাপ
  • খেজুরের গুড় ১ কেজি
  • দুধ ২ লিটার
  • পানি ১ লিটার
  • লবণ পরিমাণমতো
  • এলাচ ৪/৫ টুকরা

প্রণালী :

পাত্রে পানি ও গুড় জাল দিন। দুধ মিশিয়ে আরও ৩০ মিনিট আগুনে রাখুন। এবার পরিমানমতো পানি, চালের গুঁড়া ও সামান্য লবণ মিশিয়ে মাঝারি ঘনত্বের গোলা বানিয়ে নিন। পিঠাগুলো তৈরি করার জন্য লোহার কড়াই ব্যবহার করুন। কড়াইটি তেল দিয়ে মুছে মুছে চালের গুড়োর গোলা ঢেলে গোল গোল পিঠা তৈরি করে নিন। এবার আগের তৈরি করা গুড়ের সিরায় পিঠাগুলো দিয়ে একবার বলক এলেই চামচ দিয়ে সাবধানে নেড়ে দিন। চুলা থেকে নামিয়ে সারা রাত এভাবেই ভিজিয়ে রেখে পরদিন সকালে পরিবেশন করুন।

ভাপা পিঠা

উপকরণ:

  • চালের গুঁড়া ১ কেজি
  • পানি আধা কাপ
  • গুড় আধা কেজি
  • নারকেল কোরানো ১ কাপ
  • লবণ সামান্য

প্রণালী:

প্রথমে অ্যালুমিনিয়াম বা মাটির পাত্রের মুখে কাপড় বেঁধে পানি ভরে চুলায় বসান। এবার চালের গুঁড়া একটু লবণ দিয়ে কুসুম গরম পানি দিয়ে মেখে চালুনি দিয়ে চেলে নিন। ছোট বাটিতে প্রথমে চালের গুঁড়া এরপর গুড় দিয়ে তার ওপরে নারকেল দিয়ে আবার চালের গুঁড়া দিন। পাতলা সাদা কাপড় দিয়ে পিঠাটা মুড়ে ভাপা পিঠার পাত্রের পানি ফুটে উঠলে তার উপর বসিয়ে দিয়ে বাটিটি উঠিয়ে নিয়ে পিঠাটা কাপড় দিয়ে ভালোমতো ঢেকে দিন। উপরে একটা ঢাকনা দিন। ৫ মিনিট পর পিঠা নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

নারকেলের পুলি পিঠা

উপকরণ :

  • নারকেল ১টি
  • চালের গুঁড়া আধা কেজি
  • চিনি ১ কাপ
  • ময়দা সোয়া কাপ
  • পানি ১ কাপ
  • লবণ স্বাদমতো
  • তেল পরিমাণমতো

প্রণালী :

প্রথমে নারকেল কুড়িয়ে নিন। এবার কড়াইয়ে নারকেল ও চিনি এক সঙ্গে দিয়ে পুর তৈরি করে নিন। এবার পানি ফুটিয়ে চালের গুঁড়া ও ময়দা দিয়ে খামির তৈরি করে নিন। চালের গুঁড়া সিদ্ধ হলে নামিয়ে ভালো করে মেখে নিন। এবার ছোট ছোট লেচি কেটে পুর ভরে মুখ বন্ধ করে পুলি বানিয়ে নিন। বানানো হয়ে গেলে কড়াইয়ে তেল গরম করে ডুবো তেলে ভাজুন।

তেলের পিঠা

উপকরণ :

  • ময়দা দেড় কাপ
  • চিনি ১ কাপ মিষ্টি বেশি চাইলে দেড় কাপ
  • লবণ ২ চিমটি লিকুইড
  • দুধ ১ কাপ ২ টেবিল চামচ
  • তেল ভাজার জন্য যা লাগে

প্রণালী :

সব উপকরণ একসঙ্গে মাখিয়ে ২ থেকে ৩ ঘণ্টা রেখে দিন। এর পর চামচে নিয়ে ভাজবেন। ভাজা শেষে পরিবেশন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *