কাঁধে ব্যথা প্রতিরোধ যেভাবে করবেন

কাঁধে ব্যথার সমস্যায় অনেকেই ভুগে থাকেন। তবে কিছু প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা নিলে কাঁধে ব্যথা প্রতিরোধ করা যায়। এনটিভির নিয়মিত আয়োজন স্বাস্থ্য প্রতিদিন অনুষ্ঠানের ২৪১০তম পর্বে এ বিষয়ে কথা বলেছেন ডা. এ এইচ এম রেজাউল হক। বর্তমানে তিনি ইউনাইটেড হাসপাতালের অর্থোপেডিক বিভাগে পরামর্শক হিসেবে কর্মরত আছেন।প্রশ্ন : কাঁধে ব্যথা প্রতিরোধে কী করতে হবে?

উত্তর : কাঁধে সমস্যার জন্য প্রধান কারণ হলো ফ্রোজেন শোল্ডার। আরেকটি হলো সারভাইক্যাল স্পনডোলাইটিস। আমাদের শতকরা ৭০ থেকে ৮০ ভাগ রোগীই এই দুই রোগে আক্রান্ত। এই জন্য আমি প্রধানত বলব কাঁধের যেন নড়াচড়া সচল থাকে। সারভাইক্যাল স্পনডোলাইটিসের ক্ষেত্রে কিছু জীবনযাপনের পরিবর্তন করতে হবে। অনেকক্ষণ ধরে ঝুঁকে কাজ না করা। ল্যাপটপ, কম্পিউটারে যারা কাজ করে তাদের ক্ষেত্রে খুব বেশি হচ্ছে এটা।সেটি অবশ্যই মাথায় রাখতে হবে এবং সতর্ক হতে হবে। জীবনযাপন পরিবর্তন করতে হবে। এক ঘণ্টা দেখার পর পাঁচ মিনিট বিরতি দিতে হবে। আর সঙ্গে একটু ব্যায়াম করতে হবে।এখনকার বাচ্চারা কিন্তু অনেকক্ষণ ধরে বসে মোবাইলে গেমস খেলছে। অনেকক্ষণ ধরে মাথা নিচু করে আছে। সেই ক্ষেত্রে অবশ্যই বাবা-মায়ের সতর্ক হতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *